আজ : মঙ্গলবার, ৯ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২২শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, ১৫ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী, রাত ৯:৪৭,

দিনাজপুরের আদালতে মাহমুদুর রহমান: স্থায়ী জামিন লাভ

দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥

রবিবার দুপুরে একটি মামলায় দৈনিক আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান দিনাজপুরে আদালতে স্বশরীরে হাজিরা দিয়ে বের হলে তাঁকে স্বাগত জানান, জেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহ্বায়ক হাসানুজ্জামান উজ্জ্বল, বীরমুক্তিযোদ্ধা মকসেদ আলী মঙ্গলীয়া, প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজু, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড আ ন ম হাবিবুল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড আবু মাসুদ, সাংবাদিক ইউনিয়ন দিনাজপুর (রেজিঃ নং রাজ-২৯৩৬) এর সভাপতি ও আমার দেশ এর দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি জি এম হিরু, কোষাধ্যক্ষ কোরবান আলী সোহেল, দপ্তর সম্পাদক আতিউর রহমান, দিনাজপুরনিউজ২৪ডটকম এর সম্পাদক আশফাক আহমেদ, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মোস্তফা কামাল মিলন, যুগ্ম-আহ্বায়ক মোকছেদুল ইসলাম টুটুলসহ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতৃবৃন্দ।
মাহমুদুর রহমানের আইনজীবী আ ন ম হাবিবুল্লাহ জানান, দিনাজপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ৮৬১/২০১৭ নং মামলায় দন্ডবিধি ১২০, ২০(এ), ১২১ (এ), ৫০১, ৫০২, ৫০৩ ধারার মামলায় স্বশরীরে হাজিরা দেন মামলার আসামী মাহমুদুর রহমান।

সামসুর রহমান পারভেজ নামের একজন জনৈক ব্যক্তি মাহমুদুর রহমানকে আসামী করে এর আগে এই মামলা দায়ের করে। বিজ্ঞ বিচারক মাহমুদুল করিম তাঁর স্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেন। মাহমুদুর রহমানের পক্ষ্যে এ্যাড. আ ন ম হাবিবুল্লাহসহ অন্যান্য আইজীবেদের মধ্যে এ্যাড. একরামুল আমিন, এ্যাড. ফিরোজ ইব্রাহিম, এ্যাড. আছির উদ্দিন, এ্যাড. মোল্লা সাখাওয়াত হোসেন, এ্যাড. আবু মাসুদ, এ্যাড. রইস উদ্দিন, এ্যাড. আব্দুল হালিম, এ্যাড. সৈকত প্রমূখ জামিন আবেদনে অংশগ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ!

Share চেহারা সুন্দর রাখতে আমরা কত কিছুই না করি! ত্বককে আরাম দিতে মাসে এক বার হলেও স্পা, নানা রকম উপাদেয় দিয়ে স্বাস্থ্যকর ম্যাসাজ করে থাকি। কখনো কি শুনেছেন, একটা অাস্ত অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ করার কথা? ঠিক ...

অনাথ, অসহায়ের শাসনকর্তা হতে চাই: ইমরান

Share ভোটগণনায় ইমরানের ক্ষমতায় আসা প্রায় নিশ্চিত। শেষ পর্যন্ত ১৩৭-এর ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে না পারলেও বিলাবল জারদারির পিপিপি-র সঙ্গে জোটের রাস্তাও প্রায় পাকা। ফলে পাক প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে বসা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছেন ...