আজ : সোমবার, ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, ২রা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী, সকাল ৬:৫১,

দশ বছর পর সাউন্ডটেক থেকে আসিফের গান (ভিডিও)

প্রায় দশ বছর পর আবারও জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী আসিফ আকবরের গাওয়া নতুন গান মুক্তি পেলো দেশের অন্যতম শীর্ষ স্থানীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সাউন্ডটেক থেকে। ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সাউন্ডটেকের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে আসিফ আকবর ও কণার গাওয়া এই নতুন দ্বৈত গানের শিরোনাম ”মুছে দিবো কান্না তোমার”।

জনপ্রিয় গীতিকার আহমেদ রিজভীর কথায় নাজির মাহমুদের সুরে ও মুশফিক লিটুর সংগীতে এই গানটির মিউজিক ভিডিওতে মডেল হিসেবে ছিলেন আসিফ আকবর নিজেই। আর তার সাথে মডেল হিসেবে ছিলেন মডেল-অভিনেত্রী তানিয়া বৃষ্টি।

সাউন্ডটেক থেকে প্রকাশিত নিজের এই নতুন গান প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বললেন, ‘১০ বছর পর সাউন্ডটেকের সাথে আবারও কাজ করলাম। ভালোতো অবশ্যই লাগছে। কারণ আমার অডিও ক্যারিয়ারের শুরুটাতো সাউন্ডটেক থেকেই। কাজেই সাউন্ডটেকের প্রতি আমার একটা আলাদা ভালোবাসা,ভালো লাগা সবসময় ছিলো,থাকবে। গানটিতে আমার সহশিল্পী কণা। দারুণ গেয়েছে গানটি কণা। অভিনন্দন কণাকে। আর আহমেদ রিজভী ভাইয়ের লেখা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। আমার এবং রিজভী ভাইয়ের বোঝাপড়াটা সবসময়ই দারুণ। যে কারণে তার লেখা গান আমি গাইতে আমার বরাবরই ভালো লাগে। একই কথা নাজির মাহমুদ ভাইয়ের বেলায়ও খাটে। নাজির ভাই একজন গুণী মানুষ। তার সুর নিয়ে কিছুই বলার নেই। মুশফিক লিটুকে ধন্যবাদ গানটির চমৎকার সংগীতয়োজনের জন্য। সবশেষে ধন্যবাদ এবং ভালোবাসা সুলতান মাহমুদ বাবুল ভাই এবং সাউন্ডটেককে। আমার ভক্ত-শ্রোতাদের বলতে চাই গানটি শুনুন-দেখুন। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে গানটি’।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু গান ও এগুলোর মিউজিক্যাল ফিল্মের কারনে শ্রোতা দর্শকের কাছে আলোচিত হয়েছেন ও প্রিয়া তুমি কোথায় খ্যাত কন্ঠশিল্পী আসিফ আকবর।

আসিফ-কণার গাওয়া গানটি দেখতে ক্লিক করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ!

Share চেহারা সুন্দর রাখতে আমরা কত কিছুই না করি! ত্বককে আরাম দিতে মাসে এক বার হলেও স্পা, নানা রকম উপাদেয় দিয়ে স্বাস্থ্যকর ম্যাসাজ করে থাকি। কখনো কি শুনেছেন, একটা অাস্ত অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ করার কথা? ঠিক ...

অনাথ, অসহায়ের শাসনকর্তা হতে চাই: ইমরান

Share ভোটগণনায় ইমরানের ক্ষমতায় আসা প্রায় নিশ্চিত। শেষ পর্যন্ত ১৩৭-এর ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে না পারলেও বিলাবল জারদারির পিপিপি-র সঙ্গে জোটের রাস্তাও প্রায় পাকা। ফলে পাক প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে বসা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছেন ...