আজ : সোমবার, ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, ২রা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী, সকাল ৬:৫০,

মরিচের কেজি ২৫০

সোনালী দেশ:

রাজধানীর কাঁচাবাজারগুলোতে একদিনের ব্যবধানে কাঁচামরিচের দাম বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। প্রতিকেজি কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২৫০ টাকায়।

বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর কারওয়াবাজার, রামপুরা, মালিবাগ, শান্তিনগর, হাঁজিপাড়ার বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

 হাঁজিপাড়া বৌ-বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ব্যবসায়ীরা প্রতিকেজি মরিচ বিক্রি করছেন ১৮০ থেকে ২০০ টাকায়। তবে ১০০ অথবা ২৫০ গ্রাম মরিচ কিনতে দাম পড়ছে ২০০ টাকা।

এছাড়া বাজারে কোনো ব্যবসায়ী ১০০ গ্রাম মরিচ ২০ টাকা এবং ২৫০ গ্রাম মরিচ ৫০ টাকার নিচে বিক্রি করছেন না। অথচ একদিন আগেও ব্যবসায়ীরা ২৫০ গ্রাম মরিচ ২৫ থেকে ৩০ টাকায় বিক্রি করেছেন।

বৌ-বাজারের কাঁচাসবজি ব্যবসায়ী মো. বেলায়েত বলেন, আড়তে মরিচের দাম বেড়ে গেছে। বুধবারের তুলনায় আজ (শুক্রবার) দিগুণ দাম দিয়ে আড়ত থেকে মরিচ আনতে হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বেশি দাম দিয়েও আড়তে মরিচ পাওয়া যাচ্ছে না। আমি অল্পকিছু পেয়েছি। কিন্তু এখানকার অধিকাংশ ব্যবসায়ীই আড়তে গিয়ে মরিচ পাননি।

শান্তিনগর বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ব্যবসায়ীরা ২৫০ গ্রাম মরিচ ৬০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। সে হিসাবে বাজরটিতে প্রতিকেজি মরিচের দাম পড়ছে ২৪০ টাকা।

বাজারটির ব্যবসায়ী মো. আলামিন বলেন, বাজারে মরিচের সরবরাহ কম, তাই দাম বেড়ে গেছে। একদিন আগেও ২৫০ গ্রাম মরিচ ৩০ থেকে ৩৫ টাকায় বিক্রি করেছি। সেই মরিচ এখন ৬০ টাকা পোয়া (২৫০ গ্রাম) বিক্রি করতে হচ্ছে।

কারওয়ানবাজারে আসা ক্রেতা মো. জামাল বলেন, একের পর এক জিনিসের দাম বাড়ছে। কিন্তু কেউ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। সব বোঝা এসে পড়ছে আমাদের মতো স্বল্প আয়ের মানুষের উপর। এর আগে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিকভাবে বাড়লো, এখন আবার মরিচের দাম বেড়েছে। এভাবে চলতে থাকলে তো আমাদের জীবন চালানো দুরহ হয়ে পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ!

Share চেহারা সুন্দর রাখতে আমরা কত কিছুই না করি! ত্বককে আরাম দিতে মাসে এক বার হলেও স্পা, নানা রকম উপাদেয় দিয়ে স্বাস্থ্যকর ম্যাসাজ করে থাকি। কখনো কি শুনেছেন, একটা অাস্ত অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ করার কথা? ঠিক ...

অনাথ, অসহায়ের শাসনকর্তা হতে চাই: ইমরান

Share ভোটগণনায় ইমরানের ক্ষমতায় আসা প্রায় নিশ্চিত। শেষ পর্যন্ত ১৩৭-এর ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে না পারলেও বিলাবল জারদারির পিপিপি-র সঙ্গে জোটের রাস্তাও প্রায় পাকা। ফলে পাক প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে বসা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছেন ...