আজ : শুক্রবার, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং, ১৬ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী, রাত ১১:৩২,

সেই শরীরসেতু পার হয়েছেন ইউএনও, প্রধান শিক্ষকও

দুই সারিতে স্কুল শিক্ষার্থীরা দাঁড়িয়ে মেলে দেয়া হাতের ওপর একজন শিক্ষার্থীর শরীর বিছিয়ে দেয়া হয়েছে। আর তার পিঠের ওপর দিয়ে জুতো পায়ে হেটে যাচ্ছেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। অন্যপাশে একজন শিক্ষার্থী হাত আর হাঁটুর উপর ভর দিয়ে উবু হয়ে রয়েছে, যাতে তিনি তার পিঠের ওপর পা দিয়ে নামতে পারেন।
history
তবে শুধু তিনি নন, অতীতেও এমন শিশু শিক্ষার্থীদের শরীরসেতু পার হয়েছেন ওই উপজেলার উল্লেখযোগ্য কর্তাব্যক্তিরা। স্কুল কর্তৃপক্ষ দাবি করছে এটা তাদের ঐতিহ্য।

চাঁদপুরের নীলকমল উছমানিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় ফটোফ্রেমে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আবদুল মতিন শিক্ষার্থীদের শরীরসেতু পার হওয়ার ছবি সাঁটানো রয়েছে। এছাড়া প্রায় ৮-১০ বছর আগে হাইমচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুখেশ চন্দ্র বিদ্যালয়টিতে প্রধান অতিথি হিসেবে এসে শিশু মানবসেতু পার হয়েছেন।

জানা গেছে, স্কুলটিতে প্রতিবছরই এমন শিক্ষার্থীদের শরীরসেতু তৈরি করা হয় এবং ওই সেতু পার হন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির আসন গ্রহণকারী ব্যক্তিরা।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোশাররফ হোসেন জানান, ‘প্রতিবছর বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীরা এরকম সেতু তৈরি করে থাকে এবং সেখানে অনেকবার প্রধান অতিথিকে হেটে যাবার অনুরোধ করা হয়েছে। এর আগের প্রধান শিক্ষক হেঁটেছেন, একজন ইউএনও হেঁটেছেন এমন ছবি আছে। এবারও শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান হেটে যাওয়ার অনুরোধ করলে প্রথমে তিনি রাজি না হলেও, পরে রাজি হন।’

এ ব্যাপারে নূর হোসেন পাটওয়ারী জানান, ‘আসলে খেলাধূলায় নানান কিছু হয়। আমাকে তারা সেতু ইভেন্টে সদস্য হতে আমন্ত্রণ জানালে প্রথমে সাড়া দেইনি। কিন্তু অনেক জোরাজুরি করায় ওই সেতু পার হতে আমি বাধ্য হই। যদিও পরে তাদেরকে আমি পাঁচ হাজার টাকা পুরিস্কার দিই। তাদেরকে কষ্ট দেয়া বা বিলাসিতা করা আমার কোনো উদ্দেশ্য ছিলো না।’

স্কুলটির একজন সাবেক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমিও স্কুলটির ছাত্র থাকাকালে এ ধরণের ঘটনার শিকার হয়েছি। কিন্তু এটা বোঝার মত বয়স তখন আমাদের ছিল না। কিন্তু এখন বুঝতে পারি এটা কতটা অমানবিক। এটা আসলে স্কুল কমিটিকে খুশি করার জন্য করে। এই পরম্পরা বন্ধ হওয়া উচিত।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নারীর অধিকার; সমধিকারের নামে অগ্রাধিকার নয়! -মোহাম্মদ আলাউদ্দিন

Share – মোহাম্মদ আলাউদ্দিন সম্প্রতি কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলা সদরের একটি স্কুলে বার্ষিক ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আমণন্ত্রিত অতিথি হিসেবে যোগদান করি। ঐ অনুষ্ঠানে স্কুলের নবম শ্রেণির ছেলেমেয়ে তথা নারী-পুরুষ সমধিকারের জন্য গণসচেতনতামূলক একটি অভিনয় ...

অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ!

Share চেহারা সুন্দর রাখতে আমরা কত কিছুই না করি! ত্বককে আরাম দিতে মাসে এক বার হলেও স্পা, নানা রকম উপাদেয় দিয়ে স্বাস্থ্যকর ম্যাসাজ করে থাকি। কখনো কি শুনেছেন, একটা অাস্ত অজগর দিয়ে শরীর ম্যাসাজ করার কথা? ঠিক ...